রোয়াংছড়িতে অতি দরিদ্র পরিবারকে নগদ অর্থ বিতরণ

11

॥ রোয়াংছড়ি প্রতিনিধি ॥
বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে হিউম্যানিট্যারিয়ান ফাইন্ডেশেনের আয়োজন ও ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ সহযোগিতায় রোয়াংছড়ি এরিয়া প্রোগ্রাম এর উদ্যোগে উপজেলার ২নং তারাছা ও ৩নং আলেক্ষ্যং ইউপিসহ ২টি ইউনিয়নের ৫৬টি অতি দরিদ্র পরিবারের অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষে গৃহপালিত ছাগল/শুকর ও হাস-মুরগী ক্রয় করে লালন পালনের উপজেলা পরিষদের সভায় মিলনায়তনের মোবাইল ব্যাংকিং (নগদ) এর মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা প্রতিটি পরিবারকে ১৮ আঠার হাজার টাকার মধ্যে ১০ হাজার করে বিতরণ করা হয় এবং পরবর্তীতে ৮ হাজার টাকা ছাগল, শুকর, হাঁস ও মুরগী ক্রয়ের পর প্রদান করা হবে।
সোমবার (৮জুলাই) সকালে আর্থিক সহায়তার প্রদান উদ্বোধনী উনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সাইফুল ইসলাম। এসময় অনুষ্ঠানের হিউম্যানিট্যারিয়ান ফাইন্ডেশেনের রোয়াংছড়ি এরিয়া প্রোগ্রাম ম্যানেজার উসাইম্যা মারমা সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন, হিউম্যানিট্যারিয়ান ফাইন্ডেশেনের কর্মসূচি সমন্বয়ক মানব কল্যাণ চাকমা।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, তারাছা ইউপি চেয়ারম্যান উনুমং মারমা, উপজেলা কৃষি অফিসার এহসানুল হক, ভারত সেন তঞ্চঙ্গ্যা, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর রোয়াংছড়ি এরিয়া প্রোগ্রাম ম্যানেজার প্রকাশ চাম্বুগং, উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসের স্টাফ হিরণময় তঞ্চঙ্গ্যা।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিসহ বক্তারা বলেন দরিদ্রতা দূরীকরণের জন্য এধরণের উদ্যোগ ও সহায়তা খুবই উপযোগী। বাড়ির আশপাশে সবজী চাষের প্রশিক্ষণ দিয়েছে ও হাস-মুরগী, ছাগল ও শুকর পালনের ওপর প্রশিক্ষণ প্রদান করে সহায়তা হিসেবে নগদ অর্থ সহায়তা করছে। যাতে প্রত্যেক পরিবার পরবর্তীতে আয় বৃদ্ধি করে তাদের ছেলে মেয়েদের শিক্ষা, সুস্বাস্থ্য ও পুষ্টি নিশ্চিত করার পাশাপাশি দরিদ্রতা দূর করে সমাজের মূল স্রোতধারায় ফিরতে পারে। আপনারা যারা এই সহায়তা পেয়েছেন তারা এই অর্থ সহায়তা কাজে লাগিয়ে পরিবারের আয় বৃদ্ধি করবেন। প্রচুর পরিশ্রমের মাধ্যমে আপনাদেরকে পরিবারের জন্য ভালো কিছু করতে হবে। এভাবে সন্তানদের সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে তুলবেন। যাতে ভবিষ্যতে আপনাদের সন্তানদের এধরণের অর্থ সহায়তা অনুষ্ঠানে আসতে না হয়।