রাজস্থলির রাঙ্গালহালিয়ার আগাপাড়া এলাকায় এক কৃষকে পিটিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা

63

॥ রাজস্থলী প্রতিনিধি ॥
রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আগাপাড়া এলাকার বাসিন্দা ক্যচিংহ্লা মারমার ছেলে কৃষক নিহত মংসাথোয়াই মারমা (৪৯) কে রাতের আঁধারে প্রচন্ড পিটিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।
ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে চন্দ্রঘোনা থানার পুলিশ জানান, নিহত কৃষকের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের ধারণা তাকে টিপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
জানা যায়, সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ভোর ৪টার দিকে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পাড়ায় এসে নিহত মংসাথোয়াই মারমাকে ডেকে নিয়ে প্রচন্ড মারধর করে তাকে হত্যা করে চলে যায়।
চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিউল আজম জানান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আদোমং মারমার কাছ থেকে খবর পেয়ে নাইক্যছড়া স্কুলের মাঠ সংলগ্ন হতে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নিহতের পরিবার পুলিশকে জানিয়েছেন, রাতে কে বা কারা ডেকে নিয়ে যায় সকালে খবর পাই বাড়ী হতে ২০০ গজের বাহিরে আমার স্বামীর লাশ পরে আছে। বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকে জানাই। কিন্তু কীভাবে তিনি নিহত হলেন, তা জানা যায়নি। তবে ধারনা করা হচ্ছে তাকে বেধক টিপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান থানার ওসি। এ ব্যাপারে চন্দ্রঘোনা থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
বাঙালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আদোমং মারমা বলেন, সকালে নিহতের পরিবার আমাকে ফোন করে বলেন তার স্বামীকে বা কারা মেরে ফেলছে। আমি চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ওসিকে বিষয়টি অবগত করি। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানা নিয়ে যায়। কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি। এদিকে ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।