বান্দরবানের রুমায় সাংবাদিক নামধারী কেএনএফের সহকারী পররাষ্ট্র সচিব লোঙ্গা খুমী আটক

141

ডেস্ক রিপোর্টঃ-সাংবাদিকতার আড়ালে রাষ্ট্র বিরোধী ক্রিশ্চিয়ান জঙ্গী সংগঠন কুকি-চিন ন্যাশনাল আর্মির অন্যতম শীর্ষ নেতা লোঙ্গা খুমী নামে এক সাংবাদিককে আটক করেছে যৌথবাহিনী। শুক্রবার (১৯ মে) রুমা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। তিনি বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার খোলাইন পাড়ার পিতা- ঙাচা খুমী, মাতা- আংলোচে খুমীর সন্তান। তার স্ত্রী রুমা উপজেলা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বর্তমানে চাকুরিরত। তিনি রুমা গির্জা পাড়ায় বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করছেন।
লোঙ্গা খুমী একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার রুমা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়াও রাজনৈতিক পরিচয়ে তিনি রুমা উপজেলা বিএনপি (জেরি গ্রুপের) সহ সাংগঠনিক সম্পাদক। বিএনপির ব্যানারে তিনি গত ২০১৬ সালে রুমা সদর ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে বালু ও পাথর উত্তোলন এবং চাঁদাবাজিরও অভিযোগ রয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। লোঙ্গা খুমী গত ২০০৮ সালে কুকি-চিন ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (কেএনডিও) এর সহ-সভাপতি হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।
নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, সাংবাদিকতার পরিচয়ের আড়ালে লোঙ্গা খুমী কেএনএফের সাথে জড়িত এমন অভিযোগের ভিত্তিতে নিরাপত্তা বাহিনী দীর্ঘদিন তাকে নানাভাবে নজরদারী করতে থাকে। এসময় তার বিরুদ্ধে কেএনএফকে নানাভাবে সহায়তার অভিযোগ পাওয়া যায়। এসবের মধ্যে রয়েছে, কেএনএফের পক্ষে স্থানীয় উপজাতি জনগোষ্ঠীকে মটিভেশন করা, কেএনএফের পক্ষে স্যোশাল মিডিয়ার ছদ্মনামে লেখালেখি, কেএনএফের পক্ষে সক্রিয় বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়া আইডি, গ্রুপ ও পেইজে লেখা পাঠানো, নিরাপত্তা বাহিনীর অপারেশনাল গতিবিধি ও গমনাগমনের তথ্য পর্যবেক্ষণ ও কেএনএফকে পাচার করা, কেএনএফের ক্যাম্পে খাদ্য, ওষুধ ও রসদ পাঠানো, কেএনএফের পক্ষে গোয়েন্দাবৃত্তি প্রভৃতি অভিযোগ সম্পর্কে প্রমাণ পাওয়া যায়।
নিরাপত্তা বাহিনী সূত্র জানায়, সম্প্রতি কেএনএফের ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু গোপন নথি উদ্ধার করা হয়। এসব নথির মধ্যে একটি নথিতে লোঙ্গা খুমীর নাম কেএনএফের সহকারী পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে দেখা যায়, যাতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে কেএনএফ প্রধান নাথান বমের নাম রয়েছে। এর প্রেক্ষিতেই তাকে আজ গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছে। লোঙ্গা খুমী ২০০৮ সালে নাথান বমের নেতৃত্বে গঠিত কুকি-চিন ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (কেএনডিও) এর সহ-সভাপতি হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।
এই ব্যাপারে রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, কেএনএফের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়, তার বিরুদ্ধে থানায় দুটি মামলা থাকায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, বেশ কয়েকমাস আগে কেএনএফ এর সাথে যোগাযোগ আছে এমন সন্দেহে বান্দরবানের দৈনিক গনকন্ঠের প্রতিনিধি রিচার্ড বমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে র‌্যাব। সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, এমন অভিযোগে নজরদারিতে আছে বান্দরবানের আরো কয়েকজন সংবাদকর্মী।
সর্বশেষ তথ্যে জানা গেছে, রুমা থানার মামলা নাম্বার ১ও ৩ নং মামলায় লোঙ্গা খুমীকে গ্রেফতার দেখিয়ে আজ বিকালে রুমা থানা পুলিশ বান্দরবান চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে বিজ্ঞ আদালত তাকে বান্দরবান জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।