নাইক্ষ্যংছড়িতে রাবার বাগানের টেপার শ্রমিক অপহৃত: ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ

6

শামীম ইকবাল চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়িঃ-বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত হয়েছেন একজন রাবার বাগানের টেপার শ্রমিক। রাবার বাগানে যাওয়ার সময় গতিরোধ করেই ওই টেপার শ্রমিককে অপহরণ করা হয়। সোমবার (২১ জুন) রাত ৭টায় এ ঘটনা ঘটে।
অপহৃত টেপার শ্রমিক উপজেলা বাইশারী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ বাইশারী এলাকার মৃত হাশেম এর ছেলে মো: হারুন ওরফে ইমরান (১৮)।
মঙ্গলবার (২২ জুন) সন্ধায় অপহরনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাইশারী তদন্ত পুলিশ কেন্দ্রের ইনচার্জ আবুল হাশেম।
তিনি জানান, গত সোমবার রাতে অপহরণের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশের একটি দল ঘটনা স্থলে পৌঁছে হারুনকে উদ্ধারের জন্য অভিযান চালাচ্ছে। তবে রাত থেকে গভীর রাত পর্যন্ত অভিযানে তাঁর সন্ধান এখনো মেলেনি।
তিনি আরও জানান, হারুনের পারিবারিবার থকে জানিয়েছেন, অপহৃত হারুনের মোবাইল থেকে বড় ভাই মিজানের মোবাইলে ৩ লাখ টাকার মুক্তি পণে দাবীর কথা জানিয়েছে। মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে।
জানাযায়, বাইশারীর লম্বা বিল এলাকার বাসিন্দা আব্দু শুক্কুরের মালিকানাধীন রাবার বাগানের নিয়মিত টেপার শ্রমিক মো: হারুন। আব্দু শুক্কুরের রাবার বাগানটি ছিল থ্রিষ্টার রাবার বাগানের পাশে। রাতে কর্মস্থল রবার বাগানে যাওয়ার পথে তারা বনিয়া ঝিরি এলাকায় পৌঁছলে তাঁর হাটার গতিরোধ করে তাকে অপহরন করে।
আর এদিকে, ওই অপহরণ ঘটনার পর পুরো বাইশারী ইউনিয়নে রাবার বাগান এবং দুর্গম এলাকায় বসবাসর পরিবারাগুলোর মাঝে চরম আতংক বিরাজ করছে।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক সময়ে সন্ত্রাসীদের হাতে শতাধিক রাবার শ্রমিক, কর্মকর্তা, চাকুরীজীবী এবং কৃষক অপহৃত হন। তারা পরবর্তীতে মুক্তিপণ দিয়েই ছাড়া পান পৃথক স্থান থেকে।
অপহৃত মো: হারুন ওরফে ইমরানের বড় ভাই মিজান এই প্রতিবেদককে জানান, বাইশারী ইউনিয়নের একটি রবার বাগানে চাকরি করেন। প্রায়ই তিনি সেখানে রাত যাপন করেন। সোমবার রাতে অস্ত্রধারী একদল দুর্বৃত্ত ইমরানকে রাবার বাগান সংলগ্ন তারাবনিয়া ঝিরি থেকে অপহরণ করে গহীন বনের দিকে নিয়ে যায়। এরপর মো: হারুনর মুঠোফোনে অপহরণকারীরা তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণ না দিলে তাঁর ভাইকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে।