দূর্ঘটনা রোধকল্পে সম্মেলিত ভাবে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে-চেয়ারম্যান শানে আলম

8

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধিঃ-খাগড়াছড়িতে সড়ক দূর্ঘটনা রোধকল্পে সেমিনার ও মাদক এর কুফল নিয়ন্ত্রণ এবং শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় খাগড়াছড়ি পৌর পরিবহন টার্মিনাল এলাকায় অনুষ্টিত হয়।
খাগড়াছড়ি সড়ক পরিবহন চালক সমবায় সমিতির লিঃ সভাপতি মনতোষ ধরের সভাপতিত্বে অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন, প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শানে আলম, বিশেষ অতিথি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ, খাগড়াছড়ি সদর, শহর ও যানবাহন, পুলিশ পরিদর্শক সুপ্রিয় দেব, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার মাদকদ্রব্য নিয়য়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক ধনরঞ্জন চন্দ্র দেবনাথ, পুলিশ সার্জেন্ট তরুন দাশ, পুলিশ সার্জেন্ট মোঃ ফারুক হোসান, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা ট্রাক মিনিট্রাক মালিক গ্রুপের সভাপতি আব্দুল মোবিনসহ বাস-ট্রাক চালক ও চালকের সহকারীরা।
অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শানে আলম বলেন, আমি মালিক সমিতি সদস্য ও চালক সমিতির সদস্য। চালকরা আমাদের সেবাদেন। চালকদের অনেক সম্মান। মাদক সেবন করে গাড়ি চালাবেন না। নেশা অবস্থায় গাড়ি চালাবেন না। চালকরা ইচ্ছে করে দুর্ঘটনা ঘটায় না। তাই দূর্ঘটনা রোধকল্পে সম্মেলিত ভাবে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
বিশেষ অতিথি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ বক্তব্যে বলেন, গাড়ি চালক সম্মানজনক পেশা। উন্নত দেশে চালকের পড়া-শুনা আছে। চালকরা নিয়মকানুন অনেকে জানে না। অনেক চালক মাদক খেয়ে গাড়ি চালাই। ছোট ছোট ছেলেরা গাড়ি চালাই। চালকের সহকারীরা ছোট ছোট না বুঝে রাতে এদিক ওদিক করে। আপনারা এই বিষয়ে সর্তক থাকবেন। তিনি বলেন, আপনি চালক। আপনার ছেলে মেয়ে পড়া-শুনা করে চিকিৎসক ও ইঞ্জিনিয়ার হবে।
বক্তব্যে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার মাদকদ্রব্য নিয়য়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক ধনরঞ্জন চন্দ্র দেবনাথ বলেন, সমতল থেকে পাহাড়ে মাদক অনেক নিযন্ত্রণ। আমাদের জানতে হবে মাদক কী। মাদক এমন একটা বিষয়। মাদক একবার সেবন করলে বারবার সেবন করতে ইচ্ছে করে। তিনি বলেন, দেশে এক কোটি মানুষ মাদক সেবন করে। অনুষ্টানের সভাপতিত্ব খাগড়াছড়ি সড়ক পরিবহন চালক সমবায় সমিতির লিঃ সভাপতি মনতোষ ধর অনুষ্টানের শেষে অতিথিদের নিয়ে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।