রাঙ্গামাটিতে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উদযাপিত

17

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙ্গামাটিঃ-রাঙ্গামাটিতে মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল আযহা যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় উদযাপিত হয়েছে। ঈদুল আযহা উপলক্ষে রাঙ্গামাটির বিভিন্ন মসজিদে মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্টিত হয়।
এ উপলক্ষে বুধবার (২১ জুলাই) সকালে রাঙ্গামাটির প্রতিটি মসজিদে মসজিদে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঈদের নামাজ আদায় করে মুসল্লিরা। নামাজ শেষে বিশ্বকে করোনা মুক্ত করতে এবং বিশ্ব শান্তি কামনায় আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেন। পরে আল্লাহর সন্তুষ্টি ও নৈকট্য লাভের আশায় সামর্থ অনুযায়ী পশু কোরবানীর মধ্যদিয়ে ঈদ উল আযহা উদযাপন করেন।
সকালে রাঙ্গামাটির প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয় তবলছড়ি মসজিদে। এখানে দুই দফা সকাল ৮ টায় এবং সকাল ৯ টায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদে সকাল ৮ টায়, বনরূপা জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭ টায়, কালেক্টরেট জামে মসজিদের সকাল ৮ টায় ও সকাল সাড়ে ৮ টায় ভেদভেদী জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭ টায় ও সকাল ৮ টায় দুটি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান ঈদের নামাজ আদায় করেন কালেক্টরেট জামে মসজিদে, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদে, পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী কালেক্টরেট জামে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করেন।
সারাদেশের ন্যায় বিলাইছড়িতেও ঈদুল আযহা অনুষ্ঠিত
\ বিলাইছড়ি প্রতিনিধি \
বিলাইছড়িতেও সারাদেশের ন্যায় ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হয়েছে।উপজেলা জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে সকাল সাড়ে ৭ টায় জামাত অনুষ্ঠিত হয়। মসজিদের ঈমাম মো.শিব্বির জানান, বর্তমানে ধর্মীয় মন্ত্রনালয়ের জারিকৃত করোনা অতি মহামারী কারণে স্বাস্থ্য বিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ আদায় করা হয়। তিনি আরও জানান, উপজেলায় প্রায় ১৩টি গ্রামে ঈদ পালন করা হয়।এতে উপজেলা জামে মসজিদে নামাজ আদায় করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান ও মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুল মান্নান সহ সর্বস্তরের মুসল্লীগণ।
এছাড়াও ১নং বিলাইছড়ি ইউনিয়নে উপজেলা সদর এলাকা সাক্রাছড়ি মো.আবুসাঈদ কার্বারী পাড়া এলাকা, বহলতলী বাঙালি পাড়া এলাকা ও ২নং কেংড়াছড়ি ইউনিয়নে মহর মেম্বার এলাকা, সোবহান মেম্বার এলাকা ও পান্নু মেম্বার এলাকা এবং ৩নং ফারুয়া ইউনিয়নের বাজার এলাকা, শুক্কর ছড়ি পাড়া এলাকা, এগুজ্যাছড়ি বাঙালি পাড়া এলাকা এবং আলেখ্যং বাঙালি পাড়া এলাকা মুসল্লীরা স্বস্ব মসজিদে নামাজ আদায় করেন।
সকালে নামাজ শেষে পশু কোরবানি দেওয়া হয়। ঘরে ঘরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ উৎসব পালন করা হয়।
করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়া ও পৃথিবীর সকল মানুষের সুখ সমৃদ্ধির কামনায় পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ শেষে মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে শুকরিয়া আদায় করেন।